বাংলাদেশের লোককবি ও লোকসাহিত্য – প্রথম খন্ড

নব্বই দশকের মাঝামাঝি থেকে আমি লোককবিদের পরিচিতি ও তাঁদের লোকসঙ্গীত সংগ্রহে বা উদ্ধারে নিয়োজিত। সবসময় লোকসঙ্গীতের পাশাপাশি লোককবিদের পরিচিতি উদ্ধারে জোর দিয়েছি। এর কারণও আছে। আমার বারবার মনে হয়েছে, অতীতের সংগ্রাহকেরা লোককবিদের পরিচিতি উদ্ধারে তৎপর ছিলেন বটে, কিন্তু ততটা ছিলেন না যতটা লোকসঙ্গীত সংগ্রহে বা উদ্ধারে ছিলেন। আজ আমার সংগ্রহশালায় বাংলাদেশের নানা প্রান্তের অনেক লোককবির পরিচিতি ও তাঁদের লোকসঙ্গীত সংরক্ষিত। লোকসাহিত্য বিষয়ক আমার বিভিন্ন গ্রন্থে এসব ধারাবাহিকভাবে লিপিবদ্ধ হচ্ছে।

৳ 150

About The Author

শামসুল আরেফীন

শামসুল আরেফীন

নেশা লেখালেখি হলেও পেশায় তিনি একজন সরকারি কর্মকর্তা । ১৯৭৬ সালে বেতার উপস্থাপক হিসাবে তাঁর কর্মজীবনের শুরু এবং ১৯৭৯ সালে সিনিয়র প্রযোজক পদে বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রাম কেন্দ্রে যোগদান করেন।
ছোট কাগজে, স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকের সাহিত্যপাতায় শামসুল আরেফীন দীর্ঘকাল ধরে কখনো প্রকৃত নামে, কখনো আরণ্য আরিফ ছদ্মনামে কবিতা লিখে সুনাম কুড়িয়েছেন। রুবাই রচনা শুরু শুণ্যের প্রথমে। প্রচুর রচনা করেছেন। “রুবাইত-ই-আরেফীন” –এ রুবাই সংখ্যা ২৫৯।
আরেফীনের জন্ম চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলার সদর এয়াকায় পিতা মাতা যথাক্রমে আবদুল মোবিন ও তমনারা বেগম। “রুবাইত-ই-আরেফীন” – এর পূর্বে আরেফীনের রচনা সম্পাদনায় ৮টি গ্রন্থ প্রকাশিতঃ আহমদ শফার ন্দুর মহল, গাঙ্গেয় বদ্বীপের অনন্য সঙ্গীতজ্ঞঃস্বপন কুমার দাশ, আস্কর আলী প্নডিতঃ একটি বিলুপ্ত অধ্যায়, বাংলাদেশের লোককবি ও লোকসাহিত্য প্রথম খন্ড, বাংলাদেশের লোককবি ও লোকসাহিত্য ২য় খন্ড-৪র্থ খন্ড, আস্কর আলী পন্ডিতের দুর্লভ পুথি জ্ঞান চৌতিসা ও পঞ্চসতী প্যারজান।

বলাকা প্রকাশনঃ

নব্বই দশকের মাঝামাঝি থেকে আমি লোককবিদের পরিচিতি ও তাঁদের লোকসঙ্গীত সংগ্রহে বা উদ্ধারে নিয়োজিত। সবসময় লোকসঙ্গীতের পাশাপাশি লোককবিদের পরিচিতি উদ্ধারে জোর দিয়েছি। এর কারণও আছে। আমার বারবার মনে হয়েছে, অতীতের সংগ্রাহকেরা লোককবিদের পরিচিতি উদ্ধারে তৎপর ছিলেন বটে, কিন্তু ততটা ছিলেন না যতটা লোকসঙ্গীত সংগ্রহে বা উদ্ধারে ছিলেন। আজ আমার সংগ্রহশালায় বাংলাদেশের নানা প্রান্তের অনেক লোককবির পরিচিতি ও তাঁদের লোকসঙ্গীত সংরক্ষিত। লোকসাহিত্য বিষয়ক আমার বিভিন্ন গ্রন্থে এসব ধারাবাহিকভাবে লিপিবদ্ধ হচ্ছে।

‘বাংলাদেশের বিস্মৃতপ্রায় লোকসঙ্গীত’ নামক এ গ্রন্থেও ২২ জন লোককবির পরিচিতি ও রচনা অবিকৃতরূপে উপস্থাপন করা হয়েছে। এঁরা হলেনÑ চট্টগ্রাম থেকে মোহাম্মদ সৈয়দ, হেফাজতুর রাহমান খান, বদরুন্নেসা সাজু, গোলাম গণি চৌধুরী, মোজহেরুল আলম, মোহাম্মদ বাদশাহ্ আলম, শেখ নিজাম উদ্দিন, কাজল শীল, আবদুল গফুর হালী, মাওলানা মুহম্মদ বজলুল করিম মন্দাকিনী, শাহ্ আবদুল জলিল সিকদার, শামসুল আরেফীন; মৌলভীবাজার থেকে শহীদ সাগ্নিক, মীর লিয়াকত; সিলেট থেকে ফকির বাবর চৌধুরী, আবদুস সবুর মাখন, আব্দুল খালিক; কিশোরগঞ্জ থেকে মো. আবদুল জব্বার শাহ্ মিমনগরী; ত্রিপুরা রাজ্যের কৈলাশহর থেকে মোহাম্মদ ইয়াছিন আলী (প্রকাশ ফকির ইয়াছিন শাহ্); বরিশাল থেকে মোহাম্মদ সাইদ মিয়া; ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে মোহাম্মদ আবদুর রহমান (প্রকাশ-আবদুল্লাহ বাঞ্জরামপুরী); নোয়াখালি থেকে আব্দুর রশিদ প্রমুখ। ২২ জন লোককবির মধ্যে ১৭ জন লোককবির ২০টি গ্রন্থ লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। যাঁদের রচনা গ্রন্থের মাধ্যমে লিপিবদ্ধ করা হয়নি, তাঁরা হলেনÑ মোহাম্মদ বাদশাহ্ আলম, শহীদ সাগ্নিক, মীর লিয়াকত, ফকির বাবর চৌধুরী ও আবদুস সবুর মাখন। বলাবাহুল্য, ২২ জন লোককবির রচনা হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে প্রায় ১৬০০ গান (বারমাসি, এছাড়া হিন্দি-ফার্সি ভাষায় রচিত একাধিক গানসহ), ১টি জারি গান (শহিদে এমাম), ১টি কবিতা (মেঘনা নদী ভাঙ্গনে হাতিয়া দ্বীপের করুণ কাহিনী) ও ১টি জীবনী (জাহাঁগীর চরিত)।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “বাংলাদেশের লোককবি ও লোকসাহিত্য – প্রথম খন্ড”

Your email address will not be published. Required fields are marked *