নিজস্বতার পাণ্ডুলিপি/Nijossatar Pandhuliphi

৳ 200

About The Author

বর্গিয় জ. আলম

কবি বর্গিয় জ. আলম; মূল নাম জাহাঙ্গীর আলম, জীবনের বহমান অগ্রযাত্রায় বহু পোঁড় খাওয়া এই কবি নিঃসন্দেহে একজন জীবনের ফেরীওয়ালা! বাবার বদলির চাকরির সুবাদে আশৈশব দেশের প্রান্ত থেকে প্রান্তরে ঘুরে বেড়ানোর সুযোগে বিভিন্ন অঞ্চলের আঞ্চলিক জীবনবোধ, সংস্কৃতি সর্বোপরি জীবন যাত্রার প্রচুর অভিজ্ঞতা তাঁর ঝুলিতে। জীবনকে অতি কাছ থেকেই দেখার, উপলব্ধি করার সুযোগ হয়েছে তাঁর। এখনো সুযোগে ইচ্ছে মত ঘুরতে হাত ছাড়া করেন না তিনি। এই কাব্য গ্রন্থের লেখাগুলোতেও তার ছাপ স্পষ্ট!
আর সেই সুবাদে প্রাথমিক শিক্ষা নিয়েছেন উন্নত মিশনারী-কে.জি প্রাইমারি মিলিয়ে ৬টি! মাধ্যমিক অবশ্য নিজ গ্রামের রায়পুর ইউনিয়ন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ১টি, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ সহ ৬ টি! কলেজে এইচএসসি, স্নাতক, শিক্ষা এবং আইন ইত্যাদি বিষয়ে জীবনকে শাণিত করার চেষ্টায় ব্রতী হন। বিশ্ববিদ্যালয় ২টি, তন্মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসনেই স্নাতকোত্তর হয়েছেন তিনি।
লেখালেখিতে বাল্যেই তার হাতেখড়ি। অজপাড়া গাঁয়ের স্কুলে ৮ম শ্রেণির ছাত্র থাকাকালিন সময়েই “ব্যাঙ” কবিতাই তার লেখা প্রথম কবিতা। চট্টগ্রামের “দৈনিক পূর্বতারা” পত্রিকায় প্রকাশিত “সাথী মোর সঙ্খ” কবিতাই পত্রিকায় প্রকাশিত প্রথম কবিতা। আর তখন থেকেই ছোট-বড় সকলের কাছে কবি হিসেবেই তার পরিচয়, নিজ এলাকায় তাই নামের আগে কবি না বললেই যেন নয়।
যদিও দঃখের বিষয় ৯১’র প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় কবির জীবনের সার্বিক পট পরিবর্তন করে দেয়, ঘূর্ণিঝড়ের ছোবলে হারিয়ে যায় তাঁর প্রায় পা-ুলিপি; তথাপি পূর্বের কিছু লেখা স্থান পেয়েছে অত্র কাব্য গ্রন্থে। তারপর অনেক বছর তিনি পা মাড়াননি এ’রাস্তায় আবার নেহায়েত খেয়ালের বশে পুনরায় বিচরণ এ পথে; সে অনেক কথা...!
পেশাঃ পেশাগত জীবনেও তিনি অনেকটা বৈচিত্র্যময়। জীবনের অনেক বন্দরেই করেছেন জীবিকার ফেরী। তাইতো তিনি জীবন-জীবিকার এক ব্যতিক্রম কান্ডারি।
কবি নিজেকে কবি পরিচয় দিতে রাজি নন, তাঁর একান্ত ইচ্ছা লিখিয়ে হিসেবেই চিনুক বা বলুক পাঠক সমাজ। সে যাই হোক, লিখিয়ে হিসেবে পুরোনো হলেও প্রকাশনায় তিনি নতুন। আশা করি পাঠক মহোদয়গণ আমাদের প্রকাশনায় নতুন আত্ম-প্রকাশকারী কবিকে সাদরে গ্রহণ করবেন।

পারিবারিকতাঃ চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা থানার রায়পুর গ্রামের মরহুম মনির আহমদ ও স্নেহময়ী মা আছিয়া খাতুন এর সংসারে পাঁচ সন্তানের মধ্যে তিনিই সবার বড়। জন্ম ১৯৭৫ সালের ১৬ এপ্রিল (পোশাকি), গুণধর দুই পুত্র আবরার তাজওয়ার-উল-আলম জায়েদী (১৩) ও আবরার জাওয়াদ-উল-আলম ওয়াছি (৮) এবং স্ত্রী নাজমুন আরা শিমুন কে নিয়ে তার সাংসারিক জগৎ!

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “নিজস্বতার পাণ্ডুলিপি/Nijossatar Pandhuliphi”

Your email address will not be published. Required fields are marked *