জলের ক্যানভাস/JOLER CENVAS

গল্প জীবনের কোন অলৌকিক বিষয় নয়। প্রকৃত জীবনার্থের শিল্পিত রূপই গল্প। গল্পে, বিধত বিস্তৃত জীবন, লেখকের জীবন-দষ্টির রূপক ছাড়া পৃথক কিছু নয়। মানুষের সুখ-দুঃখ যেমন গল্পে প্রতিফলিত হয়, তেমনি স্বপ্ন ভঙ্গের বেদনা, প্রত্যাখ্যান, পাপবােধ, সম্পর্কের টানাপােড়েন আমৃত্যু অস্তিত্বের নিঃসঙ্গতাই বলে দেবে মানুষ চিরটা কাল একা। এসবের যা কিছু-ধারণ করবে গল্প। জলের ক্যানভাস সুরাইয়া বাকেরের প্রথম গল্পগ্রন্থ। প্রেম, বিচ্ছেদ, সম্পর্কের টানাপােড়েন গল্পের প্রধান বিষয়। নারীদের ক্ষমতায়ন, নারী মুক্তির প্রাবল্য গল্পে ধারণ করেন তিনি। মানুষ হিসেবে মানুষের কাছে ছােট হয়ে থাকা কাম্য নয়। তাই সৃষ্টির উন্মাদনায় তাঁর ক্লান্তিহীন পথ চলা গল্পকে আরাে মহৎ করে তুলবে বলে আমি বিশ্বাস করি। তাঁর গল্প তাঁর জীবনেরই অংশ হয়ে উঠুক এ প্রত্যাশায়

দে বা শি স ভ টা চার্য

৳ 75

About The Author

সুরাইয়া বাকের

সুরাইয়া বাকের

সুরাইয়া বাকেরের জন্ম চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার হরিশপুর ইউনিয়নে। সন্দ্বীপের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, ভাষা সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সন্দ্বীপ মডেল হাই স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক জনাব মােদাচ্ছের আহামদ তাঁর পিতা। মা নূরজাহান বেগম। সন্দ্বীপের মােমেনা সেকান্দর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং সরকারি হাজী এ.বি. কলেজে তিনি অধ্যয়ন করেন। সন্দ্বীপ বিচিত্রা ফোরাম ক্লাবের দেয়াল পত্রিকার মাধ্যমে লেখালেখির সূচনা। পরবর্তীতে বিভিন্ন স্থানীয় ও জাতীয় পত্র-পত্রিকায় তাঁর ছােটগল্প ছাপা হয়। লেখালেখির পাশাপাশি তিনি একজন রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী। কর্মজীবনে সীতাকুণ্ডের। গােলাবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত আছেন। নারী অধিকার ও নির্যাতন নিয়েও কাজ করছেন তিনি। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ সীতাকুণ্ড শাখার । আহবায়ক। ২০০৮ সালে নারী অধিকার আন্দোলনে অবদানের জন্য পেয়েছেন মাতৃভূমি সম্মাননা পদক। ২০১১ সালে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, চট্টগ্রাম শাখা আন্তর্জাতিক নারী দিবসে তাঁকে গুণী নারীর সম্মাননা প্রদান করে। সুরাইয়া বাকের তিন সন্তানের জননী। তিনি সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহআল বাকের ভূঁইয়া’র সহধর্মিনী।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “জলের ক্যানভাস/JOLER CENVAS”

Your email address will not be published. Required fields are marked *